ভাই আমার…

ভাই আমার 

ভাই আমার, আপনি মানুষটা অনেক মূল্যবান। আপনার অনুতপ্ত হৃদয়ের একফোঁটা চোখের জল এই মহাবিশ্বের মালিকের কাছে অনেক, অনেক প্রিয়। আপনার জন্য এ পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর মানুষটি নিঘুম রাত কাটিয়ে তাঁর রবের কাছে দু’আ করতেন। ১৪০০ বছর আগের সেই মানুষটি (ঐ) আপনাকে এতই ভালোবাসতেন যে, তিনি আরাফাতের ময়দানে গ্রীষ্মের তপ্ত রোদে একটানা ছয় ঘণ্টা আল্লাহ কাছে দু’আ করে গেছেন যেন আল্লাহ্ আপনাকে ক্ষমা করে দেন, আপনাকে আপনার আদি নিবাস জান্নাতে ফিরে যেতে দেন। রাসূলুল্লাহ বলেছেন, “কেউ যদি আমাকে দুটো জিনিসের নিশ্চয়তা দেয়, তাহলে আমি তাকে জান্নাতের নিশ্চয়তা দিচ্ছি। সে দুটো জিনিস হলো জিহ্বা এবং দুই রানের মাঝখানের লজ্জাস্থান।” 

বুখারি :৬১০৯)

ভাই আমার, যে মানুষটা আপনার জন্য তায়েফে পাথরের আঘাতে ক্ষতবিক্ষত হয়েছেন, উঁহুদের ময়দানে দাঁত হারিয়েছেন, যার জীবনের সকল চিন্তা-চেতনা ছিল শুধু আপনাকে ঘিরেই, সে মানুষটার সাথে হাশরের ময়দানে যখন আপনার দেখা হবে, তখন আপনি তাঁকে কী জবাব দেবেন? কোন মুখে আপনি তাঁর সামনে যাবেন? ভাই আমার, একবার কল্পনা করেন, আপনি বিভিন্ন পর্ন ওয়েবসাইটে ঘুরে বেড়াচ্ছেন, বলিউডের আইটেম সং গোগ্রাসে গিলছেন, এমন অবস্থায় যদি আপনার মা, আপনার বাবা আপনাকে দেখে ফেলেন, তাহলে আপনি কী পরিমাণ লজ্জিত হবেন? যদি এমন অবস্থায় মৃত্যুর ফেরেশতা আপনার সামনে আসেন তখন কী অবস্থা হবে আপনার? হাশরের ময়দানে আপনাকে যখন এ অবস্থায় তোলা হবে, আপনার হাত, আপনার পী, আপনার চোখ যখন আপনার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেবে, রুমের দরজা বন্ধ করে, গভীর রাতে একা একা আপনি কী করতেন সেগুলো যখন সহস্র কোটি লোকের সামনে প্রকাশ করে দেয়া হবে, তখন লজ্জায় আপনি মাটির সাথে মিশে যেতে চাইবেন। সেদিনের কথাটা একবার চিন্তা করুন। 

 “হারাম থেকে পাওয়া সুখ অল্পেই শেষ হয়ে যায়। থেকে যায় শুধু গ্লানি আর লজ্জা দিন শেষে শুধু থাকে শূন্যতা অরি পাপের বোঝা সেই আমোদপ্রমোদে কী লাভ, শেষমেষ যার পরিণতি জাহান্নামের আগুনের শাস্তি?”

বুকমার্ক করে রাখুন 1