আলেকজান্ডারের মৃত্যু

সত্যি সত্যি হেফাস্টিয়নের শোক সামলে উঠতে পারেননি আলেকজান্ডার। খৃষ্টপূর্ব ৩২৩ অব্দ। জুন মাসের ১০ তারিখ বিকেল বেলা। ব্যাবিলনের দ্বিতীয় নেবুকড্রেজার প্রাসাদে মারা গেলেন আলেকজান্ডার। এর ঠিক এক মাস আগে ৩৩ বছরে পা দিয়েছিলেন তিনি। তাই অনেকে বলেন, আলেকজান্ডার ৩২ বছর বয়সে মারা গিয়েছেন। কিন্তু কেমন করে হলো আলেকজান্ডারের মৃত্যু? এ নিয়ে রহস্য রয়েই গেছে। আজও নতুন নতুন কারণ উন্মোচিত হচ্ছে। বেশ রহস্যময় মৃত্যুই হয় এই মহান মেসিডোনিয়ান অধিপতির। কেউ কেউ মনে করেন, তাকে বিষপ্রয়ােগে হত্যা করা হয়েছে। কারণ তার বাহিনীর মধ্যে বেশ কয়েকবার বিদ্রোহ সংগঠিত হয়েছিল। কিন্তু বিদ্রোহীরা এতদিন তার কোনো ক্ষতি করতে পারেনি। অ্যান্টিপ্যাটারের ছেলেরা কিংবা অন্য কেউ এই বিষপ্রয়োগ করেছিল। আবার কেউ কেউ মনে করেন আলেকজান্ডার অতিরিক্ত মদ্যপানের কারণে মারা গিয়েছেন। তিনি তখন প্রচুর মদ্যপান করতেন। ওই সময়টায় হেফাস্টিয়নের শোক কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছিলেন আলেকজান্ডার। আবার অনেকের মতে ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। তারা মনে করেন জুনের ২ তারিখ আলেকজান্ডার ম্যালেরিয়া কিংবা টাইফয়েডে আক্রান্ত হন। ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার দশদিনের মাথায় তিনি মারা যান।

ওই বছরেরই মে মাসের ২৯ তারিখ লারিসাবাসী বন্ধু মিডিয়াসের ভোজসভায় অংশ নিয়েছিলেন আলেকজান্ডার। ওই ভোজসভাতেই প্রচুর পরিমাণে পান করেন তিনি। তারপর গোসল করেন। গােসলের ঠিক পরপরই খুব অসুস্থতা বোধ করেন। আলেকজান্ডারের অসুস্থতার খবরে তার সৈন্যরা ভীষণ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ল। জুনের ৯ তারিখ তার সেনাপতিরা সাধারন সৈন্যদের সাথে জীবিত আলেকজান্ডারের সর্বশেষ দেখা করিয়ে দেন। আলেকজান্ডারকে কেবল একনজর দেখার সৌভাগ্যই তাদের হয়েছিল। কারণ তাদের রাজা তখন এতই অসুস্থ ছিলেন যে কথা বলার শক্তিও তার শেষ হয়ে আসছিল। এর একদিন পরেই অসুস্থ হওয়ার বারো দিনের মাথায় মারা গেলেন আলেকজান্ডার।

বুকমার্ক করে রাখুন 0